আমরা লাইভে English রবিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২১

ফের মালয়েশিয়ার ক্ষমতায় ফিরতে চান দণ্ডিত নাজিব রাজাক

b6d556b164e3b10d18699ea26b5b4246-6147d3be4ca0f

আগামী দুই বছরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া পার্লামেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হওয়ার কারণে প্রার্থীতা আটকে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও নিজের এই আকাঙ্ক্ষার কথা জানিয়েছেন তিনি। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পরিকল্পনার কথা জানান তিনি।

মাল্টি-বিলিয়ন ডলারের দুর্নীতির দায়ে নাজিব রাজাকের রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড মালয়স ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন (ইউএমএনএও) মালয়েশিয়ার ক্ষমতা থেকে তিন বছর আগে বিতাড়িত হয়। গত মাসে আবারও দেশটির ক্ষমতায় ফিরেছে দলটি। বিরোধী রাজনীতিকদের অভিযোগ এই দলটির নেতারা দুর্নীতির অভিযোগের ব্যাপারে নমনীয়তা দেখাতে পারেন।

২০১৮ সাল পর্যন্ত নয় বছর মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন নাজিব রাজাক। গত বছর দুর্নীতির দায়ে দোষী সাব্যস্ত হলে ১২ বছর কারাদণ্ড হয় তার। অভিযোগ অস্বীকার করে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন তিনি। এছাড়া রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তাকে দণ্ডিত করা হয়েছে দাবি করে বিচারিক প্রক্রিয়ার তদন্ত দাবি করেছেন তিনি।

নাজিব এখনও পার্লামেন্ট সদস্য। তবে দেশটির রাজার কাছ থেকে ক্ষমা না পেলে আবারও নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না তিনি। রয়টার্সকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজের অযোগ্যতাকে চ্যালেঞ্জ করে তিনি বলেন, ‘এটা ব্যাখ্যার বিষয়। এটা আইন, সংবিধান এবং আদালতের প্রক্রিয়ায় যা ঘটেছে সেগুলোর ব্যাখ্যার ওপর নির্ভর করে।’

২০২৩ সালে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনে প্রার্থী হবেন কিনা জানতে চাইলে নাজিব রাজাক বলেন, যেকোনও রাজনীতিবিদ ভূমিকা রাখতে চাইলে তিনি পার্লামেন্টে আসন চান। সুনির্দিষ্ট করে না বললেও সাংবিধানিক বাধা এড়াতে পারবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।